মেয়র আব্বাসের বিরুদ্ধে ১২ কাউন্সিলরের অনাস্থা

চাঁপাই চিত্র ডেস্ক
বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ম্যুরাল নিয়ে অবমাননাকর মন্তব্য করায় রাজশাহীর কাটাখালী পৌরসভার দুইবারের নির্বাচিত মেয়র ও আওয়ামী লীগনেতা আব্বাস আলীর অপসারণ দাবি করেছেন কাউন্সিলররা।
বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় পৌরসভা ভবনের সভা কক্ষে কাউন্সিলরদের জরুরি সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় আব্বাস আলীকে মেয়র পদ থেকে অপসারণের জন্য অনাস্থা প্রস্তাব আনেন নারী কাউন্সিলর হোসনে আরা। পরে সর্বসম্মতিক্রমে অনাস্থা প্রস্তাব পাস হয়।

শুক্রবার সকালে পৌরভবনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে ওয়ার্ড কাউন্সিলররা জানান, বৃহস্পতিবার রাতে কাউন্সিলরদের জরুরি সভায় সর্বসম্মতিক্রমে মেয়র আব্বাসকে অপসারণে অনাস্থা প্রস্তাব গৃহীত হয়। মেয়রকে অপসারণের জন্য রাত পৌনে ১১টার দিকে জেলা প্রশাসকের বাসভবনে গিয়ে তাঁর হাতে ১২ জন কাউন্সিলরের স্বাক্ষর করা অনাস্থা প্রস্তাব হস্তান্তর করা হয়।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে জেলা প্রশাসক আবদুল জলিল জানান, কাউন্সিলরদের অনাস্থা প্রস্তাব তিনি স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ে পাঠাবেন। সেখান থেকে সিদ্ধান্ত এলে পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

উল্লেখ্য, কাটাখালী পৌরসভা সংলগ্ন রাজশাহী নগরীর প্রবেশদ্বারে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল স্থাপনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজশাহী সিটি করপোরেশন। এর বিরোধিতা করে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল স্থাপন নিয়ে কটূক্তি করেছেন মেয়র আব্বাস আলী। বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হলে রাজশাহী মহানগর ও কাটাখালী পৌর এলাকায় ব্যাপক ক্ষোভের সৃষ্টি হয়।

পবা উপজেলা আওয়ামী লীগ এক জরুরি সভায় এরইমধ্যে কাটাখালী পৌর আহ্বায়কের পদ থেকে মেয়র আব্বাসকে অব্যাহতি দিয়েছে।